জাপানি ডিসপ্লে নির্মাতা শার্পের ৩ শতাংশ স্টেক কিনছে স্যামসাং

sharpইলেকট্রনিকস জায়ান্ট স্যামসাং জাপানী প্রযুক্তি কোম্পানি শার্পের ৩ শতাংশ স্টেক কিনে নিচ্ছে। এই চুক্তিতে দক্ষিণ কোরীয় প্রতিষ্ঠানটির খরচ হবে ১১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। “জাংক” ক্রেডিট রেটিং প্রাপ্ত শার্প স্যামসাংয়ের সাথে কাজ করে তাদের অবনতির দিকে থাকা ব্যবসায় কিছুটা পুনর্গঠন আনার আশা করছে।

নতুন চুক্তিটির খবর ছড়িয়ে পরার কিছুক্ষণের মধ্যেই টোকিও স্টক এক্সচেঞ্জে শার্পের শেয়ার মূল্য প্রায় ১৭ শতাংশ বেড়ে যায়।

স্যামসাং শুধুমাত্র কৌশলগতভাবেই শার্পকে সহযোগিতা করবে তা নয়, বরং জাপানী কোম্পানিটির পণ্য, যেমন ফ্ল্যাট স্ক্রিনের এক বিশাল ক্রেতা হিসেবেও আবির্ভুত হতে পারে।

স্যামসাংয়ের একটি সাম্প্রতিক স্টেটমেন্টও সেদিকেই ইংগিত দিচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, উক্ত লেনদেন কোম্পানিতে বিভিন্ন উৎস থেকে এলসিডি প্যানেল সরবরাহে সহায়ক হবে।

বিশ্বজুড়ে টেলিভিশনের মূল্য এবং চাহিদা কমে যাওয়ায় শার্প সহ আরও বেশ কিছু জাপানী কোম্পানি অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল হয়ে পরেছে। চলতি বছর মার্চ মাসের ৩১ তারিখ পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটি ৪৫০ মিলিয়ন ইয়েন লোকসানের পুর্বাভাস দিয়েছে। ক্ষতির পরিমাণ কমানোর লক্ষ্যে শার্প প্রায় ১০% (৫০০০) চাকুরী ছাঁটাই করেছে।

গত বছর শার্পের শেয়ারমূল্য প্রায় ৭০ শতাংশ হ্রাস পেয়েছিল। ঐ সময় তাইওয়ানের কোম্পানি হোন হাই ৮০০ মিলিয়ন ডলারে শার্পের ১০% স্টেক কিনে নিতে চেয়েছিল। বিনিময়ে তারা জাপানী ম্যানুফ্যাকচারারের পরিচালক বোর্ডে আসন দাবী করে, যা দিতে শার্প উৎসাহী নয়।

অবশ্য স্যামসাং শার্পের ব্যবসায়িক ব্যবস্থাপনায় কোনভাবেই যুক্ত না হওয়ার কথা জানিয়েছে। আর অনেককটা এ কারণেও চুক্তিটি সম্পন্ন হয়েছে বলে ধারণা করছেন শিল্প বিশেষজ্ঞরা।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,628 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.