যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে মঙ্গলগ্রহে থমকে গেল নাসার কিউরিওসিটি রোবট

cuমঙ্গলগ্রহে নাসা প্রেরিত চতুর্থ রোবটযান কিউরিওসিটি রোভার যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে। যন্ত্রটির আভ্যন্তরীণ কম্পিউটারে ফাইল করাপশন জনিত সমস্যায় একে “সেইফ মুড”এ রাখা হয়েছে। প্রায় ১ টন ওজনের এই রোবটটি ২০১২ সালে মঙ্গলে পাঠানো হয়।

বিবিসি জানাচ্ছে, মঙ্গলের বুকে পাথর নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করার পর পরই কিউরিওসিটির ফ্ল্যাশ মেমোরির সিস্টেম ফাইল নষ্ট হয়ে গেল। বৃহস্পতিবার থেকে ব্যাকআপ কম্পিউটার ব্যবহার করে চালু রয়েছে এই রোবট। বর্তমানে নাসা’র বিজ্ঞানীরা সমস্যাটি সমাধান করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এর মধ্যে ব্যাকআপ কম্পিউটার কনফিগার করে নতুনভাবে কাজ শুরুর প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে।

কিউরিওসিটির পুরো কার্যক্ষমতা ফিরে পেতে কয়েকদিন থেকে এক সপ্তাহ পর্যন্ত সময় লাগতে পারে।

নাসার বিজ্ঞানীরা বলছেন, ফাইল করাপশনের ঘটনা বিপথগামী নভোরশ্মি থেকে সূত্রপাত হতে পারে। যদিও সংস্থাটির যানগুলো এ ধরণের রশ্মির ক্ষতি প্রতিরোধী হয়ে থাকে, কিন্তু এরও কিছু সীমাবদ্ধতা আছে, যা কিউরিওসিটির ক্ষেত্রে দেখা গেল। যেহেতু রোবটটি মাত্রই মঙ্গলের পাথর নমুনা নিয়ে বিশ্লেষণ শুরু করেছিল, সুতরাং এমন সময়ে যান্ত্রিক গোলযোগ নাসার জন্য সত্যিই হতাশাজনক।

কিউরিওসিটি এখন যে ব্যাকআপ কম্পিউটারে চলছে সেটি ইতোপূর্বে শুধুমাত্র সফটওয়্যার আপডেট পরীক্ষা করার কাজে ব্যবহৃত হত। রোবটটিতে মোট দুইটি কম্পিউটার রয়েছে যার প্রথমটি এই মুহুর্তে বিকল। নতুন চালু করা কম্পিউটারে শুধুমাত্র অবতরণে প্রয়োজনীয় সফটওয়্যারই ইনস্টল করা আছে। তবে কিউরিওসিটির অন্যান্য সব কাজে দরকারী সফটওয়্যারগুলোও এতে দূর থেকেই ইনস্টল করা দেয়া যাবে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,701 other subscribers

Comments