নকিয়া আনছে ৪১ মেগাপিক্সেল পিওরভিউ লুমিয়া স্মার্টফোন!

nokia-lumia-920-xl

নকিয়ার পিওরভিউ প্রযুক্তির কথা মনে আছে নিশ্চয়ই? সেই যে “বৈপ্লবিক” ৪১ মেগাপিক্সেল সেন্সর সমৃদ্ধ স্মার্টফোন ক্যামেরা, যা গত বছর প্রথম প্রকাশ করা হয়েছিল। সমীকরণটা এমন দাঁড়িয়েছে যে, পিওরভিউ’র যেখানে শুরু সিম্বিয়ানের সেখানেই সমাপ্তি। সিম্বিয়ান ছিল নকিয়ার একসময়কার বাজার কাঁপানো মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম। কিন্তু কালের বিবর্তনে অ্যাপল আইওএস এবং গুগল এন্ড্রয়েড চালিত ডিভাইসের সাথে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে পারেনি নকিয়া। আর সেজন্যই এখন তারা উইন্ডোজ ফোন অপারেটিং সিস্টেম বেছে নিয়েছে। ২০১২ সালে নকিয়া পিওরভিউ ৮০৮ স্মার্টফোনের মাধ্যমে শেষ হয় সিম্বিয়ান যুগ।

মাইক্রোসফটের মোবাইল ওএস নিয়ে ভালই ঘুরে দাঁড়িয়েছে ফিনল্যান্ডের এ কোম্পানি। গত বছরের শেষ প্রান্তিকে প্রত্যাশার চেয়েও বেশি বিক্রি হয়েছে লুমিয়া সিরিজের ডিভাইস। আর সেই পালে হাওয়া লাগিয়ে দিয়েছে নতুন একটি খবর। তা হচ্ছে, লুমিয়া ফোনেও আসছে পিওরভিউ!

নকিয়া পিওরভিউ’র ৪১ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সর প্রথম থেকেই প্রযুক্তিপ্রেমীদের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ সৃষ্টি করে। উইন্ডোজ ফোন এইট চালিত ফ্ল্যাগশিপ লুমিয়া ৯২০ ফোনেও “পিওরভিউ” ব্র্যান্ড ব্যবহার করা হয়েছিল, কিন্তু এর ক্যামেরা সেন্সর ছিল মাত্র ৮ মেগাপিক্সেল। তারপরেও অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন এবং কম আলোতে অপেক্ষাকৃত ভাল ছবি তোলার ক্ষমতা বাজারে সাড়া তুলতে সক্ষম হয়।

নকিয়ার ৪১ মেগাপিক্সেল পিওরভিউ প্রযুক্তি ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারিতে বার্সেলোনায় মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে উন্মোচন করা হয়। সাধারণত আমরা যেটা দেখে থাকি, মোবাইল ক্যামেরায় মেগাপিক্সেলের অংক যত বেশি, ছবির আকারও তত বড় হয়ে থাকে। সেই হিসেবে পিওরভিউ স্মার্টফোনে তোলা ছবির সাইজ অনেক বেশি হওয়ার কথা ভাবতে পারেন কেউ কেউ। কিন্তু এখানেও নকিয়া অন্যরকম এক কৌশলের পরিচয় দিয়েছে। সেন্সর ৪১ মেগাপিক্সেল হলেও ইমেজ প্রসেসিংয়ের পর আপনি ৮ মেগাপিক্সেল সম-আকারের ফটোগ্রাফ পেতে পারেন। তাহলে এত বড় সেন্সর দিয়ে লাভ কি হল?

অধিকতর পিক্সেল থাকায় এতে কম আলোতেও ভাল ছবি তুলতে পারে পিওরভিউ। লুমিয়া ৯২০ এ ৪১ মেগাপিক্সেল লেন্স না থাকলেও “ফ্লোটিং লেন্স” প্রযুক্তি ছিল যা শেষ পর্যন্ত পিওরভিউ’র সম্মান বাঁচাতে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। এবার উইন্ডোজ ফোন এইটে যদি বিশাল সেন্সর এবং অসাধারণ সেই লেন্সের সমন্বয় ঘটে, তাহলে অন্তত স্মার্টফোন ক্যামেরায় প্রতিযোগিতার বাজারে নিঃসন্দেহে অনেক এগিয়ে থাকবে নকিয়া।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 3,106 other subscribers

Comments