নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম

বিভিন্ন কারণে নগদ একাউন্ট বন্ধ করার প্রয়োজন হতে পারে। এই পোস্টে নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়মের পাশাপাশি নগদ একাউন্ট কেন বন্ধের প্রয়োজন হতে পারে সে সম্পর্কে জানবেন।

কেন নগদ একাউন্ট বন্ধ করবেন?

নগদ একাউন্ট বন্ধ কেনো করবেন, এই বিষয়ে আপনার প্রশ্ন থাকলে প্রথমে সে বিষয়ে পরিস্কার ধারণা অর্জন করা যাক। একাধিক কারণে নগদ একাউন্ট বন্ধ করার প্রয়োজন পড়তে পারে। চলুন জেনে নেওয়া যাক নগদ একাউন্ট বন্ধ করার প্রয়োজন পড়তে পারে এমন কারণ সম্পর্কে।

সিম বন্ধ করা

নগদ একাউন্ট খোলা থাকা সিম যদি ব্যবহার বন্ধ করেন, সেক্ষেত্রে অহেতুক উক্ত সিমে নগদ একাউন্ট খোলা রাখার কোনো মানে হয়না। কোনো সিম বন্ধ করার আগে উক্ত সিমে চালু থাকা নগদ বা বিকাশ এর মতো মোবাইল ব্যাংকিং সেবা বন্ধ করে দেওয়া উচিত।

বিদেশ গমন

বিদেশে গেলে সেক্ষেত্রে নগদ মোবাইল ব্যাংকিং কোনো কাজে আসবেনা। যেহেতু নগদ ফোনে থাকা সিমের উপর ভিত্তি করে চলে ও বিদেশে বাংলাদেশী সিম ন্যাটিভভাবে চলেনা, তাই বিদেশ স্থায়ীভাবে যাওয়ার ক্ষেত্রে নগদ একাউন্ট বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

ফোন নাম্বার পরিবর্তন

আপনার ব্যক্তিগত ফোন নাম্বার পরিবর্তন করতে চাইলে সেক্ষেত্রে নগদ একাউন্টের ফোন নাম্বার পরিবর্তন করাও জরুরি। একটি এনআইডি ব্যবহার করে শুধুমাত্র একটি নগদ একাউন্ট খুলতে পারেন একজন ব্যক্তি। আপনি যদি আপনার ব্যবহারের ফোন নাম্বারটি পরিবর্তন করেন ও তাতে আপনার নগদ একাউন্ট খোলা থাকে, সেক্ষেত্রে নগদ একাউন্ট বন্ধ করে তবেই নতুন নাম্বারে নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন।

নতুন একাউন্ট খোলা

পুরোনো নগদ একাউন্ট অন্য কারো এনআইডি দ্বারা খুলে ফেললে সেক্ষেত্রে নতুন একাউন্ট খোলার প্রয়োজন পড়তে পারে। এমন অবস্থায় একাউন্ট বন্ধ করে নতুন একাউন্ট খুলতে হবে নিজের এনআইডি ব্যবহার করে।

অন্য কোনো সেবা ব্যবহার

একই সিমে একাধিক মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ব্যবহার করা যায়। তবে আপনি যদি বাড়তি মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট না রাখতে চান ও শুধুমাত্র নির্দিষ্ট এক বা একাধিক মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ব্যবহার করতে চান, সেক্ষেত্রে আপনার নগদ একাউন্ট বন্ধ করে দিতে পারেন।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার আগে

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার ক্ষেত্রে অবশ্যই এনআইডি কার্ড এর আসল কপি ও নগদ একাউন্ট খোলা সিম এর প্রয়োজন পড়বে। নগদ একাউন্ট যদি ড্রাইভিং লাইসেন্স বা পাসপোর্ট দ্বারা ভেরিফাই করা হয়ে থাকে, তবে উক্ত কাগজের আসল কপি ব্যবহার করতে হবে। সিম হারিয়ে যাওয়ার কারণে নগদ একাউন্ট বন্ধের বিষয়টি কিছুটা জটিল। তাই সম্ভব হলে সিম হারিয়ে গেলে আগে সিম তুলুন, তারপর নগদ একাউন্ট বন্ধের প্রয়োজন হলে নগদ একাউন্ট বন্ধ করুন।

এছাড়াও নগদ একাউন্ট বন্ধের আগে উক্ত একাউন্টে যদি ব্যালেন্স থেকে থাকে, তা ক্যাশ আউট করে ফেলুন, অথবা অন্য নগদ একাউন্ট পাঠিয়ে রাখুন। নগদ একাউন্টে ব্যালেন্স রেখে নগদ একাউন্ট বন্ধ করে ফেললে সেক্ষেত্রে ব্যালেন্সে থাকা অর্থ আর রিকভার করা যাবেনা।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার একাধিক পদ্ধতি রয়েছে৷ প্রথমত ঘরে বসে নগদ হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে পারেন। এছাড়া সরাসরি নগদ কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়েও নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে পারবেন।

ঘরে বসে নগদ হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম সম্পর্কে প্রথমে জেনে নেওয়া যাক। নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে নগদ হেল্পলাইন নাম্বার, 16167 বা 09609616167 এর মধ্যে যেকোনো একটিতে কল করুন। কল করার সময় অবশ্যই যে নাম্বারে নগদ একাউন্ট আছে, উক্ত সিম থেকে কল করার চেষ্টা করবেন।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম

নগদ হেল্পলাইন নাম্বারে কল করার পর কাস্টমার কেয়ার থেকে বিভিন্ন অপশন দেওয়া হবে। কাস্টমার কেয়ার এজেন্টের সাথে কথা বলার অপশন পর্যন্ত ন্যাভিগেট করুন। এরপর উক্ত কাস্টমার কেয়ার এজেন্টকে একাউন্ট বন্ধের বিষয়টি কারণসহ জানান। এরপর উক্ত কাস্টমার কেয়ার এজেন্ট আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ডের তথ্যসহ একাউন্টের কেওয়াইসি পূরণের সময় প্রদত্ত বিভিন্ন তথ্য চাইবেন।

সঠিকভাবে সকল তথ্য প্রদান করে নগদ কাস্টমার কেয়ার এজেন্টকে সহায়তা করুন। এরপর সফলভাবে ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে কাস্টমার কেয়ার এজেন্ট আপনার নগদ একাউন্ট বন্ধ করে দিবেন।

👉 বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম

এইতো গেলো কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে কলের মাধ্যমে নগদ একাউন্ট বন্ধের মিয়ম সম্পকে। এছাড়াও সরাসরি নগদ কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়ে নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে পারবেন। কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে নগদ একাউন্ট খোলা থাকা সিম ও জাতীয় পরিচয়পত্র এর মূল কপিসহ যোগাযোগ করুন। এরপর একজন কাস্টমার কেয়ার এজেন্টকে আপনার একাউন্ট বন্ধের বিষয়টি কারণসহ জানান। উক্ত এজেন্ট আপনার প্রদত্ত তথ্য ভেরিফাই করে নগদ একাউন্ট বন্ধ করে দিবেন।

👉 নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম

অনেকে প্রশ্ন করে থাকেন, নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পর উক্ত এনআইডি দ্বারা বা ফোন নাম্বারে আবার নগদ একাউন্ট খোলা যাবে কিনা। হ্যাঁ, নগদ একাউন্ট বন্ধ পর একই এনআইডি বা সিম ব্যবহার করে পুনরায় নগদ একাউন্ট খোলা যাবে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,049 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.