হ্যাকিংয়ের শিকার হল স্বয়ং ফেসবুক!

facebokedadfcdf

গত জানুয়ারি মাসে সামাজিক যোগাযোগের সাইট ফেসবুক “অত্যন্ত জটিল” এক হ্যাকিং আক্রমণের শিকার হয়েছে বলে সাইটটির ব্লগে প্রকাশ করেছে। ১৬ ফেব্রুয়ারি শনিবারের ঐ পোস্টে কোম্পানিটি আরও দাবী করেছে যে, উক্ত হ্যাকের ঘটনায় কোন ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য চুরি হয়নি।

মার্কিন সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং কোম্পানি ফেসবুক পুরো ব্যাপারটিকে ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলেছে, তাদের ইঞ্জিনিয়াররা যখন একটি “অনিরাপদ” মোবাইল ডেভলপার সাইট এক্সেস করছিলেন তখনই এর সূচনা হয়। এসময় ফেসবুক সিক্যুরিটি টিম এক্সপার্টদের ল্যাপটপে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ম্যালওয়্যার ডাউনলোড হয়ে গিয়েছিল, যা নজরে আসা মাত্রই আক্রান্ত মেশিনগুলোতে জরুরী ভিত্তিতে অনুসন্ধান চালানো হয় এবং সমস্যা সমাধানের জন্য পদক্ষেপ নেয় বলে জানিয়েছে ফেসবুক। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকেও অবহিত করা হয়েছে এবং এখন পর্যন্ত নিরাপত্তা উন্নয়নমূলক কাজ চলছে।

বর্তমানে সাড়া পৃথিবীতে এক বিলিয়নের বেশি লোক ফেসবুক ব্যবহার করছেন এবং প্রতিদিন এই সংখ্যা বাড়ছে।

শুধু ফেসবুক নয়, বিশ্বের আরও বেশ কয়েকটি বড় বড় ওয়েবসাইট যেমন টুইটার, ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল, নিউ ইয়র্ক টাইমস, ওয়াশিংটন পোস্ট, সনি এন্টারটেইনমেন্ট সহ আরও অনেক বহুল ব্যবহৃত ওয়েবসাইট হ্যাকড হয়েছে। এর মধ্যে কোন কোন সাইট এটাও দাবী করছে যে তারা এখনও হ্যাকার গ্রুপের আক্রমণ অপচেষ্টা সনাক্ত করছে এবং সেগুলো প্রতিহত করা হচ্ছে।

টুইটার স্বীকার করেছে তাদের প্রায় ২৫০,০০০ ব্যবহারকারীর ইমেইল, পাসওয়ার্ড এবং ব্যক্তিগত তথ্য বেহাত হয়ে যায়। পরবর্তীতে আক্রান্ত একাউন্টগুলোর পাসওয়ার্ড ব্লক করে দিয়ে মালিকদের ইমেইলের মাধ্যমে নতুন পাসওয়ার্ড সেট করতে বলা হয়।

এনওয়াই টাইমস, ডব্লিউএসজে এবং ওয়াশিংটন পোস্ট তাদের সার্ভারে হামলার জন্য চীনা হ্যাকার দলকে দায়ী করেছে। যদিও চীনের কোন হ্যাকার গ্রুপ তা স্বীকার করেনি।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 5,973 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.