২০১২ সালে কমে গিয়েছে মোবাইল ফোন বিক্রি!

By -

mobile-phones1

২০১২ সালে বিশ্বব্যাপী মোবাইল ফোন বিক্রি এক বছর আগের তুলনায় হ্রায় পেয়েছে। গত বছর মোট ১.৭৫ বিলিয়ন হ্যান্ডসেট কেনা হয়েছিল যা ২০১১ সালের তুলনায় ১.৭ শতাংশ কম। গবেষণা প্রতিষ্ঠান গার্টনার গত ১৩ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে। ফার্মটির এক বিশ্লেষক এক্ষেত্রে প্রতিকূল অর্থনৈতিক অবস্থাকে আংশিকভাবে দায়ী করেছেন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,569 other subscribers

গার্টনার বলছে, গত বছর সস্তা ফিচার ফোনের চাহিদা কম ছিল যা সামগ্রিক দিক দিয়ে শিপমেন্টের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। ২০১২ সালের চতুর্থ প্রান্তিকে এসে ফিচার ফোন বিক্রির পরিমাণ মাত্র ২৬৪.৪ মিলিয়নে নেমে যায় যা ২০১১ সালের শেষ তিন মাসের তুলনায় ১৯.৩ শতাংশ কম। এসময় স্যামসাং এবং অ্যাপল মিলিতভাবে ৫২ শতাংশ স্মার্টফোন বাজার দখল করে রেখেছিল বলে উল্লেখ করেছে প্রতিষ্টানটি।

২০০৯ সালের পর এই প্রথম বৈশ্বিক মোবাইল ফোন মার্কেটের “সঙ্কোচন” ধরা পরল।

গার্টনারের তথ্য থেকে জানা যায়, গত বছর অক্টোবর থেকে ডিসেম্বরের মধ্যে যেসব স্মার্টফোন বিক্রি হয়েছে তার ৬৯.৭ শতাংশই ছিল এন্ড্রয়েড এবং ২০.৯% আইওএস চালিত ডিভাইস।

ঐ সময় গুগল এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম বাজারে আধিপত্য বৃদ্ধি করেছে এবং অ্যাপলের আইওএস শেয়ার হারিছে। তবে দুই প্ল্যাটফর্মের গেজেটই বিক্রি বাড়িয়েছে বলে রিপোর্ট করেছে গার্টনার। এছাড়া মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ফোন অপারেটিং সিস্টেম ভিত্তিক বিভিন্ন কোম্পানির স্মার্টফোন বিক্রিও বৃদ্ধি পেয়েছ। এর মধ্যে নকিয়া লুমিয়া সিরিজ অন্যতম।

এদিকে ফায়ারফক্স ব্রাউজার নির্মাতা মজিলা এবং ওপেনসোর্স কম্পিউটার অপারেটিং সিস্টেম উবুন্তু স্পন্সর ক্যানোনিক্যাল তাদের নিজ নিজ স্মার্টফোন অপারেটিং সিস্টেম বাজারে আনার ঘোষণা দিয়েছে। সব মিলিয়ে ২০১৩ সালে মোবাইল বাজারে প্রতিযোগিতা ভালোই জমে উঠবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

★ টেলিটক অপরাজিতা প্যাকেজ সম্পর্কে সকল তথ্য

       
প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

 

Comments

Leave a Reply