মোবাইল ম্যালওয়ারের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হচ্ছে এন্ড্রয়েড?

andrslkdjal

মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম এন্ড্রয়েড ধীরে ধীরে নিজ প্ল্যাটফর্মে ম্যালওয়্যার আক্রমণকারীদের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হচ্ছে। সাইবার অপরাধীদের বিভিন্ন অপকর্মে সাহায্যের ক্ষেত্রে ক্রমবর্ধমান দক্ষতার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছে গুগল নির্মিত এই সফটওয়্যার। সাম্প্রতিক একটি মোবাইল ম্যালওয়্যার রিপোর্টে ব্লু কোট নামক একটি গবেষণা সংস্থা এই তথ্য প্রকাশ করেছে।

প্রতিষ্ঠানটি বলছে, ওয়েব-পালস কর্তৃক যেসব ম্যালওয়্যার (ক্ষতিকর সফটওয়ার) ব্লক করা হয়েছে তার মধ্যে ৫৮ শতাংশই এন্ড্রয়েড রুট সুবিধাভোগী এবং প্রতরাণামূলক সফটওয়্যার। প্রায় ৪০ শতাংশ এন্ড্রয়েড নির্ভর ম্যালওয়্যার ছড়ানো হয়েছে ম্যালনেট (ম্যালওয়্যার ছড়াতে যে নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা হয়) এর মাধ্যমে।

এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে ম্যালওয়্যার ঝুঁকির কারণে ব্যক্তিগত এবং প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে প্রায়ই অ্যাপল আইওএস ব্যবহাররের দিকে গুরুত্ব দেয়া হয়।

ব্লু কোট আরও জানাচ্ছে, ২০১২ সালে মোবাইল গ্রাহকদের জন্য সবচেয়ে বিপজ্জনক ক্ষেত্র ছিল পর্ণোগ্রাফি। এসময় ২০ শতাংশেরও অধিক ম্যালওয়্যার আক্রান্ত ব্যবহারকারী বিভিন্ন পর্ণোগ্রাফিক সাইট হয়ে ম্যালিসিয়াস সাইট প্রবেশ করেছে। মোবাইল ব্যবহারকারীরা যদিও এসব ডিভাইসে মাত্র ১ শতাংশ বা আরও কম সময় পর্ণোগ্রাফিক সাইট ব্রাউজ করেন, তবে যখনই এটি করেন তখন সাইবার আক্রমণের শিকার হওয়ার বড় ধরনের ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে।

মজার ব্যাপার হচ্ছে, ম্যালওয়্যার এটাকের শুরুর দিকে, যখন শুধুমাত্র ডেস্কটপ ইউজারদের টার্গেট করা হত, তখনও সাইবার আপরাধীদের একটি বহুল ব্যবহৃত অস্ত্র ছিল পর্ণোগ্রাফিক ওয়েবসাইটসমূহ। কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন এবং সামাজিক যোগাযোগের সাইট থাকায় সেগুলো ব্যবহার করেই ম্যালওয়্যার ছড়ানোর প্রবণতা বেশি দেখা যাচ্ছে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 5,039 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.