স্যামসাং ব্যাটারি কারখানায় আগুন!

ব্যাটারির দুঃস্বপ্ন পিছু ছাড়ছেনা স্যামসাংয়ের। গ্যালাক্সি নোট ৭ স্মার্টফোনে আগুন ধরে যাওয়ার ঘটনার রেশ যেন কাটতেই চাইছেনা। এবার আগুন লাগল স্যামসাংয়ের ব্যাটারি কারখানায়! চীনের তিয়ানজিন’এ অবস্থিত স্যামসাং এসডিআই কারখানায় বুধবার ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এই কারখানায় গ্যালাক্সি নোট ৭ এর কিছু ত্রুটিপূর্ণ ব্যাটারিও তৈরি হয়েছিল।

এই আগুন নেভাতে ১১০ জন্য অগ্নিনির্বাপন কর্মী এবং ১৯টি ফায়ারসার্ভিসের ট্রাক দরকার হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ পত্রিকা দ্যা টেলিগ্রাফ।

যেসব বস্তুতে আগুন ধরেছিল তার মধ্যে লিথিয়াম ব্যাটারি ও কিছু অর্ধেক প্রস্তুতকৃত পণ্যও ছিল। এতে পরিত্যাক্ত ব্যাটারিও ছিল।

স্যামসাং বলছে, এই আগুনের ঘটনা সামান্য (minor) ছিল, যা তাদের উৎপাদনকার্যে কোনো প্রভাব ফেলেনি। এতে কোনো হতাহতের ঘটনাও ঘটেনি বলে জানিয়েছে স্যামসাং। কোম্পানিটি এখন সেখানকার বায়ুর মান নিরীক্ষা করার জন্য পরিবেশ সুরক্ষা কর্মীদের সহায়তা নিচ্ছে।

২০১৬’তে স্যামসাং যখন গ্যালাক্সি নোট ৭ লঞ্চ করল, তখন চারদিক এর প্রশংসায় ভেসে গেল। কেউ কেউ বলল এটি বিশ্বের সবচেয়ে ভাল স্মার্টফোন। কিন্তু হঠাত করেই গ্যালাক্সি নোট ৭ ফোনে আগুন ধরতে থাকায় এক পর্যায়ে বাজারে থাকা সকল গ্যালাক্সি নোট ৭ ফেরত নেয়ার কাজ শুরু করল স্যামসাং।

তখন প্রায় ২.৫ মিলিয়ন গ্যালাক্সি নোট ৭ বাজার থেকে তুলে নেয়ার ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি। ডিভাইসটির উৎপাদন ও বিক্রয় বন্ধ করে দেয়া হয়। এ কারণে ২০১৬তে বেশ বড় একটা ধাক্কা খেয়েছে স্যামসাং। ত্রুটিপূর্ণ ব্যাটারির জন্যই এই ঘটনা ঘটেছে। আর এই পুরো ঘটনায় কোম্পানিটির প্রায় ১৭ বিলিয়ন ডলার গচ্চা গিয়েছে। আর সুনামের তো ক্ষতি হয়েছেই।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,809 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.