অবশেষে এপ্রিলে আসছে অ্যাপল ওয়াচ

Apple-watches

এপ্রিলে অ্যাপল ওয়াচ বাজারে আসছে এমনটাই বলছেন কোম্পানিরটি সিইও টিম কুক। অ্যাপল ওয়াচ এর সর্বনিম্ন দাম হবে ৩৪৯ ডলার। থাকছে দুটি সাইজে, ৫ টি ভিন্ন ভিন্ন ব্যান্ডে এবং ৩ টি ক্যাটাগরিতে- অ্যাপল ওয়াচ, অ্যাপল ওয়াচ স্পোর্টস এবং অ্যাপল ওয়াচ গোল্ড এডিশন।

গত বছর ৯ সেপ্টেম্বর কিউপারটিনো’তে আয়োজিত এক বিশেষ ইভেন্টে  দুই বছর ধরে চলমান সকল গুজব ও কল্পনার অবসান ঘটিয়ে স্মার্টওয়াচ তৈরির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছে অ্যাপল। সেদিনই ‘অ্যাপল ওয়াচ’ নামের এই স্মার্ট হাতঘড়ি প্রদর্শন করে টেক জায়ান্ট। অ্যাপলের সহপ্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবসের মৃত্যুর পর এই ‘অ্যাপল ওয়াচ’ ডিজিটাল ঘড়িই কোম্পানির প্রথম উদ্ভাবন।

ইতোপূর্বে বিভিন্ন গুজব ও ভবিষ্যদ্ববাণীতে ‘আইওয়াচ’ নামে পরিচিত হলেও শেষ পর্যন্ত ডিভাইসটির নাম জানা গেল ‘অ্যাপল ওয়াচ’; ঘড়িটি দুটি আলাদা (৩৮মিমি. ও ৪২মিমি.) সাইজ এবং তিনটি চেহারা নিয়ে আসবে। এগুলো হলো, ‘অ্যাপল ওয়াচ’, ‘অ্যাপল ওয়াচ স্পোর্টস’ এবং ১৮ ক্যারট সোনায় মোড়ানো ‘অ্যাপল ওয়াচ গোল্ড এডিশন’।

অ্যাপল ওয়াচের স্ক্রিন দাগ প্রতিরোধী স্যাফায়ার ক্রিস্টাল দ্বারা তৈরি এবং ডিসপ্লেটি রেটিনা মানের। ডিভাইসটিতে রয়েছে জাইরোস্কোপ, এক্সেলেরোমিটার, হার্ট-রেট সেন্সর, ট্যাপটিক ইঞ্জিন (ইনপুট সেন্সর), ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট সফটওয়্যার সিরি, ম্যাপস, ফটো অ্যাপস, রিমোট কন্ট্রোলার, ওয়াকিটকি, অ্যাপল পে পেমেন্ট সিস্টেম, ওয়্যারলেস চার্জিং প্রভৃতি।

অ্যাপল ওয়াচ ব্যবহার করতে হলে এটি আইফোনের সাথে তারবিহীনভাবে সংযুক্ত করে নিতে হবে। এটি আইফোন থেকে ওয়াইফাই ও জিপিএস সুবিধা নিয়ে থাকে। ডিভাইসটি আইফোন ৫, ৫এস, ৫সি ও ৬, ৬ প্লাস সাপোর্ট করে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,637 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.