স্মার্টফোন ক্রয়ের সময় যে বিষয়গুলো অবশ্যই খেয়াল করবেন

By -

lumia banglatech24

আপনি যদি স্মার্টফোন কিনতে চান, তবে বাজারের প্রচুর পরিমাণ স্মার্টফোনের ভীড়ে আপনি অবশ্যই নিজেকে গুলিয়ে ফেলবেন। কারণ এখন প্রতিটি স্মার্টফোনে এমন নতুন নতুন বিষয় সংযুক্ত হচ্ছে যেগুলোর কারণে কোনটাকে বাদ দিয়ে কোনটা কিনবেন তা নিরূপণ করা দূরহ হয়ে পড়ে। তবে একটি ভালো স্মার্টফোন কেনার সময় যে সকল বিষয় খেয়াল করতে হয় তা হলঃ

১। অপারেটিং সিস্টেম

স্মার্টফোন কেনার আগে আপনাকে অবশ্যই ঠিক করতে হবে যে আপনি কোন অপারেটিং সিস্টেমের ফোন কিনতে চাচ্ছেন। বাজারের উল্ল্যেখযোগ্য অপারেটিং সিস্টেমগুলো হল অ্যাপলের আইওএস, গুগলের অ্যান্ড্রয়েড, মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ ফোন ওএস ইত্যাদি। আপনাকে অবশ্যই আপনার পচ্ছন্দ অনুযায়ী অপারেটিং সিস্টেমের স্মার্টফোন নির্বাচন করতে হবে। তবে স্মার্টফোনের জগতে ব্যবহারকারী সংখ্যার দিক দিয়ে অ্যান্ড্রয়েড এখন তুলনামূলক ভাবে এগিয়ে আছে। যদিও আইওএস ভিত্তিক আইফোনের জনপ্রিয়তা বেশি, তবে দাম বেশি হওয়ায় সবাই এটা কিনতে ইচ্ছুক নন। উইন্ডোজ ওএস চালিত লুমিয়া ফোনও উন্নতি করছে।

২। হার্ডওয়্যার কনফিগারেশন

স্মার্টফোনের হার্ডওয়্যারের মধ্যে আছে, র‍্যাম, রম, প্রসেসর ইত্যাদি। হাই-ডেফিনিশন গেমস খেলতে চাইলে স্ন্যাপড্রাগন ৮১০ প্রসেসর ও ২জিবি র‍্যাম হলে ভাল হয়। তবে সাধারণ ইন্টারনেট ব্রাউজিং, ইমেইল প্রভৃতির জন্য ৫১২ এমবির চেয়ে বেশি র‍্যাম মোটামুটি ভালো মানের কনফিগারেশন বলে মনে করা হয়। সময়ের সাথে এই রেইঞ্জ বৃদ্ধি পায়।

৩। স্টোরেজ

যে কোন স্মার্টফোন তত সুবিধাজনক যত পরিমাণ তার ইন্টারনাল স্টোরেজ আছে। অধিক স্টোরেজ সম্বলিত ফোন অবশ্যই ভাল তবে বাজেটের উপর ভিত্তি করে স্টোরেজ নির্ভর করে। অতিরিক্ত মেমোরি কার্ড যুক্ত করার সুবিধা থাকলে ভাল হয়। আজকাল স্মার্টফোনে কমপক্ষে ৮ জিবি স্টোরেজ থাকা উচিত (বেশি হলে আরও ভাল)।

৪। স্ক্রিন সাইজ এবং মান

স্ক্রিনের সাইজ এবং মান স্মার্টফোন ক্রয়ের ক্ষেত্রে অনেক গুরূত্বপূর্ণ একটি বিষয়। অনেকে চান এমন স্ক্রিনের ফোন যেটি তার পকেটের মধ্যে সহজেই জায়গা করে নিবে। অনেকে চান ছোট স্ক্রিনের ফোন যাতে ফোন অপারেট করতে কোন সমস্যা না হয়। স্ক্রিনের মান খারাপ হলে আপনি হাই-ডেফিনিশন কোন কিছু দেখতে পারবেন না। এজন্য সবসময় কিউএইচডি ডিসপ্লে এর স্মার্টফোন কেনা ভালো কারণ এতে স্ক্রিনের মান মোটামুটি ভাল পর্যায়ে আছে।

৫। ক্যামেরা

এখন স্মার্টফোন গুলোতে উচ্চশক্তি সম্বলিত ক্যামেরা সংযুক্ত থাকে। স্মার্টফোন কেনার সময় দেখতে হবে যাতে এতে ন্যূনতম ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা থাকে। এখন কোন কোন স্মার্টফোনে ১৩ থেকে ২০ মেগাপিক্সেল এর ক্যামেরাও লাগানো থাকে।

৬। দাম

স্মার্টফোনের বাজারে এখন বিভিন্ন দামের স্মার্টফোন পাওয়া যায়। একটি স্মার্টফোনের দাম নির্ভর করবে স্মার্টফোনটির কনফিগারেশনের উপর। তবে দামের ক্ষেত্রে ক্রেতাই ভালো বলতে পারবেন যে কোন স্মার্টফোনটি তার জন্য সবচেয়ে ভালো। শাওমি (Xiaomi) এবং ওয়ানপ্লাস মধ্যম দামে অসাধারণ সব স্মার্টফোন দিচ্ছে। অবশ্য, “ভ্যালু ফর মানি” বলেও একটা কথা আছে। এটা ক্রেতার উপরই ছেড়ে দেয়া উচিত!

আপনি ফোন কেনার সময় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেন কোন বিষয়টির ওপর? কমেন্টে জানান!

Comments

Leave a Reply