বিশ্বের প্রথম ১০ জিবি র‍্যামের ফোন কি এটা?

আপনার প্রথম কম্পিউটারের র‍্যাম কতটুকু ছিল? এই প্রশ্নের উত্তরে অনেকেরই হয়ত উত্তর হবে ১জিবির কম কিংবা আশেপাশে- বড়জোড় ২জিবি। এর বেশি যার উত্তর হবে, তাকে তুলনামূলক নবীন বলা যেতে পারে। যুগের পরিবর্তনে এখন মোবাইল ফোনেরও র‍্যাম অহরহ ৩-৪ জিবি পাওয়া যাচ্ছে। ২জিবি তো ডালভাত। আর ১জিবি কেউ হিসেবেই ধরেনা। ৮জিবি র‍্যামের ফোন এখন বাস্তবতা।

কিন্তু ডাবল ডিজিট? সেই রেকর্ডও ভাঙতে যাচ্ছে নতুন একটি ফোন। তাতে থাকবে ১০ জিবি র‍্যাম। অবাক হয়েছেন?

চীনা স্মার্টফোন নির্মাতা অপো নিকট ভবিষ্যতে ১০ জিবি র‍্যাম সমৃদ্ধ স্মার্টফোন বাজারে আনতে যাচ্ছে। অন্তত তাদের সাম্প্রতিক একটি সনদ এটাই জানাচ্ছে। চীনের ফোন সার্টিফিকেশন নিয়ন্ত্রক সংস্থা ‘টিনা’ (TENAA) কর্তৃক ইস্যু করা এক সার্টিফিকেশন থেকে জানা গেছে, অপো ফাইন্ড এক্স এন্ড্রয়েড স্মার্টফোনের নতুন একটি ভ্যারিয়েন্ট তৈরি করা হয়েছে যেটি ১০ জিবি র‍্যাম নিয়ে আসবে।

একটি টুইটে অপো ফাইন্ড এক্স এর ১০ জিবি র‍্যাম ভ্যারিয়েন্টের কনফিগারেশন দেখে চীনা সংবাদমাধ্যম গিজচায়না টিনার নিকট থেকে এই সনদের সত্যতা যাচাই করেছে বলে জানিয়েছে।

১০জিবি র‍্যামের ফোন বাজারে আসার খবর এর আগেও এসেছে। ভিভো এক্সপ্লে৭ এবং আসুস রগ ফোনেরও ১০জিবি র‍্যাম নিয়ে আসার গুঞ্জন ছিল। এখন অপো যদি সবাইকে অবাক করে দিয়ে ফাইন্ড এক্স মডেলের ১০জিবি ভ্যারিয়েশন লঞ্চ করে, তাহলে তাদেরই ডাবল ডিজিট র‍্যামের দৌড়ে ‘প্রথম’ হওয়ার কথা- যদি না এর আগে অন্য কেউ হুট করে একই পরিমাণ র‍্যামের ফোন বাজারে না নিয়ে আসে।

অপো ফাইন্ড এক্স প্রথমবার যখন বাজারে আসে, তখন এটিতে ৮জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ অপশন ছিল। ১০জিবি র‍্যামের অপো ফাইন্ড এক্স ফোনে ২৫৬জিবি স্টোরেজ থাকতে পারে। অন্যান্য স্পেসিফিকেশন আগের মতই থাকবে। অফিসিয়াল ঘোষণা এলে বিস্তারিত জানানোর আশা রাখছি। সে পর্যন্ত সাথেই থাকুন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 5,039 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.