Advertisements

ফ্রিল্যান্সারের ডায়েরিঃ হারিয়ে যাওয়া কিছু স্মৃতি

By -

20141228_110347

আমাদের ক্লাস ফাইভ-এইটের বৃত্তি পরীক্ষা ও এসএসসি পরীক্ষা হয়েছিল বাকেরগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী জে.এস.ইউ. স্কুলে। নিজের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মতই জে.এস.ইউ. স্কুলটাও কেন যেন কাছের মনে হয়। যদিও ঐ পরীক্ষাগুলো ছাড়া সেখানে আর কখনোই যাওয়া হয়নি আমার।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,148 other subscribers

ফাইভের বৃত্তি পরীক্ষায় আমাদের সাথে আরও কয়েকটি স্কুল থেকে পরীক্ষার্থী এসেছিল। সেই সময় দুই দিনব্যাপী বৃত্তি পরীক্ষা হত। বেঞ্চের কাছাকাছি যাদের সাথে আমরা পরীক্ষা দিয়েছিলাম, তাদের সাথে কথাবার্তা হলেও পরে আর যোগাযোগ হয়নি। তখনকার যুগে তো আর ফেসবুক-মোবাইল ছিলনা।

এরপর এইটের বৃত্তি পরীক্ষায়ও তাদের সাথে দেখা হয়ে যায়। ক্লাস সিক্স, সেভেন, এইট- এই তিন বছর ছেলেগুলো আমার কথা মনে রেখেছিল।

20141228_110314

এইটের বৃত্তি পরীক্ষার পরে ওদের সাথে আবারও দেখা হয়েছিল এসএসসি পরীক্ষার সময়। খুব সম্ভবত পদার্থবিজ্ঞান ব্যবহারিক পরীক্ষার পর।

আমার যে সহপাঠীরা বাণিজ্য বিভাগে পড়ত তাদের কাছ থেকে খোঁজ নিয়ে সেই স্কুলের একটা ছেলে আমাদের পরীক্ষার হলের সামনে এসে দেখা করল। সেই সাথে ক্লাস ফাইভ-এইটের বৃত্তি পরীক্ষার ফলাফলও জানতে চাইল।

20141228_110557-e14443244701871

দুর্ভাগ্যবশত তখনও এখনকার মত যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিলনা। এইচএসসিতে আমরা এক একজন এক এক দিকে চলে গেলাম। অল্প কয়েক ঘন্টার জানাশোনায় যারা আমার কথা এত দিন ধরে মনে রাখল, তাদের কোনো খোঁজই আর পেলাম না। ফেসবুক জিনিসটা আরও আগে আসলে হয়ত এমন আরও কিছু মানুষের সাথে যোগাযোগ থাকত যারা সত্যিকার অর্থেই অনেক কাছের।

—  —  —  —

আরাফাত বিন সুলতান

বিবিএ (ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং), এমবিএ (ফিন্যান্স)

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

ফেসবুকে আমার প্রোফাইলঃ https://www.facebook.com/arafat.bin.sultan

টুইটারে আমিঃ https://twitter.com/ArafatBinSultan

আমার গুগল প্লাস প্রোফাইলঃ https://plus.google.com/u/0/+ArafatBinSultan

Advertisements

Comments

Leave a Reply