আইফোন ৬এস নিয়ে দুই অভিযোগ

By -

iphone 6s and plus

আপনি হয়তো দেখেছেন আইফোন ৬এস এবং ৬এস প্লাস এর প্রথম পর্বের রিভিউ বের হয়েছে। রিভিউগুলোতে দেখা যায় সমালোচকরা নতুন এই আইফোন দুটিকে পছন্দ করলেও এর ব্যাটারি এবং স্টোরেজ নিয়ে তারা মোটামুটি ভালোই বিরক্ত।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,333 other subscribers

রিভিউয়ার’রা বলছেন, নতুন ডিভাইসগুলোর ব্যাটারি লাইফ আগের আইফোন ভার্সন গুলোর মতই। এর ডিভাইসগত উন্নতি হলেও ব্যাটারিতে কোনো প্রকার উন্নতি লক্ষ্য করা যায় না। যদিও আকারে নতুন আইফোনের ব্যাটারি আগের তুলনায় ছোট।

সমালোচকদের দ্বিতীয় যে অভিযোগ তা হল এর স্টোরেজ নিয়ে। ই ফোনের সব থেকে সাশ্রয়ী যে ভার্সনটি রয়েছে তাতে মাত্র ১৬ জিবি স্টোরেজ দেয়া হয়েছে যা বেশিরভাগ ব্যবহাকারীর জন্যই খুবই কম। কেননা নতুন আইফোনে ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, সেই সাথে 4k ভিডিও যা প্রচুর পরিমাণ স্টোরেজ নেয়। অনেক সমালোচক মনে করছেন এটি ক্রেতাদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ১০০ ডলার খসানোর একটি কৌশল অ্যাপলের। কেননা আইফোন ৬এস প্লাস এর ১২৮ জিবি ৯৪৯ ডলার, ৬৪ জিবি ৮৪৯ ডলার এবং ৩২ জিবি বাদ দিয়ে তারা বের করেছে ১৬ জিবি যার মুল্য ৭৪৯ ডলার ফলে আপনাকে সাবলিল ভাবে আইফোন ব্যবহার করতে হলে অবশ্যই সর্বনিম্ন ৮৪৯ ডলার খরচ করতে হবে।

এ দুটি সমস্যার কোনোটিই প্রমান করে না যে আইফোন ভাল নয়। সম্ভবত আইফোন ৬ এস এবং ৬এস প্লাস এখনকার সময়ে সবচেয়ে ভাল ফোন। সমস্যা এতটুকুই যে আপনি যদি উন্নত ব্যাটারি এবং বেশি স্টোরেজ আশা করেন তবে আপনাকে সামনের বছরের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

আপনি কি আইফোন ব্যবহার করেন? কোন মডেল? সেটা নিয়ে আপনার মতামত কী?

ছবিঃ সিনেট

প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

 

Comments

Leave a Reply