শাওমি এমআই ৬ এলো ৬জিবি র‍্যাম ও শক্তিশালী হার্ডওয়্যার নিয়ে

By -

শাওমি এমআই ৬

গত বছর মোবাইল ফোনের বাজারে সকলের দৃষ্টি কেড়েছিল শাওমি এমআই ৫ এন্ড্রয়েড স্মার্টফোন। আর এবার এই চীনা কোম্পানিটি নিয়ে এসেছে আরো একটি ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস- শাওমি এমআই ৬ স্মার্টফোন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,333 other subscribers

৫.১৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি (৪২৮ পিপিআই, আইপিএস এলসিডি) বাঁকানো স্ক্রিন সমৃদ্ধ এই ফোনটির চারপাশে স্টেইনলেস স্টিল কেসিং ব্যবহার করা হয়েছে। ডিভাইসটির সামনে ও পিছনে উভয় দিকেই বাঁকানো গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছে যেটা এমআই ৫ ফোনেও দেখা গিয়েছিল।

এমআই ৬ ফোনের সামনের দিকে নিচে হোম বাটনের সাথে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে। পিছনের দিকে আছে দুইটি ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ফ্লাশ রয়েছে কাঁচের নিচেই। এর ১২ মেগাপিক্সেল ডুয়েল প্রাইমারি ক্যামেরা আরো বিস্তৃত অ্যাঙ্গেল এবং টেলিফটো প্রযুক্তি সমৃদ্ধ যাতে আপনি দ্বিগুণ অপটিক্যাল জুম এবং ১০ গুণ ডিজিটাল জুম করতে পারবেন। ফোনটির সামনের দিকে দেয়া হয়েছে একটি ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।

শাওমি এমআই ৬

দুঃখজনকভাবে শাওমি এমআই ৬ ফোনটিতে কোনো হেডফোন জ্যাক নেই। এতে কোনো মেমোরি কার্ড স্লটও দেয়নি শাওমি।

ফোরজি ডুয়াল ন্যানো সিমের এই ফোনটি এন্ড্রয়েড ৭.১.১ নোগাট অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করছে। সাথে আছে এমআইইউআই ৮ লঞ্চার।

শাওমি এমআই ৬ ফোনটিতে পাবেন স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ অক্টাকোর সিপিইউ যা ১০ ন্যানোমিটার আর্কিটেকচারের উপর ভিত্তি করে তৈরি। স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ সিরিজের প্রসেসর এই ফোনটি ছাড়া এই মুহূর্তে শুধুমাত্র স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ এ আছে!

শাওমি এমআই ৬

ফোনটিতে আরো আছে অ্যাড্রিনো ৫৪০ জিপিইউ এবং ৬ জিবি র‍্যাম। হ্যাঁ, আপনি ঠিকই শুনেছেন, এমআই ৬ ফোনে ৬জিবি র‍্যাম আছে।

এমআই ৬ স্মার্টফোনে রয়েছে ২x২ ডুয়েল Wi-Fi যা দ্বিগুণ দ্রুত এবং আরো বিস্তৃত এলাকাজুড়ে এর নেটওয়ার্ক কভার করতে সক্ষম। এছাড়া থাকছে ৩৩৫০ এমএএইচ ব্যাটারি, শাওমির ভাষ্যমতে এটা একবার ফুল চার্জে পুরো একদিন চলবে। একটি ফ্ল্যাগশিপ ফোনের কাছ থেকে এমন চাওয়াটা মোটেই অতিরিক্ত কিছু নয়।

এমআই ৬ ফোনের মোট ৫টি বাহ্যিক সংস্করণ পাবেনঃ পার্পল, হোয়াইট, ব্ল্যাক, সিলভার এবং সিরামিক এডিশন যার মূল ক্যামেরার লেন্সের চারদিকে সোনার রিং থাকবে। এমআই মিক্স ফোনেও এরকম একটি ভার্সন ছিল।

শাওমি এমআই ৬

শাওমি এমআই ৬ ফোনের দুটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েশন থাকবেঃ ৬৪জিবি (দাম ৩৬০ ডলার বা প্রায় ৩০ হাজার টাকা ও ১২৮জিবি (দাম ৪২০ ডলার বা প্রায় ৩৪ হাজার টাকা)। আর সোনার রিং সমৃদ্ধ সিরামিক এডিশনের দাম ৪৩৫ ডলার বা প্রায় ৩৫ হাজার টাকা (১২৮জিবি স্টোরেজ)। এপ্রিলের শেষ নাগাদ চীন থেকে ফোনটি যাত্রা শুরু করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

 

Comments

Leave a Reply